সমরেশ বসু Archive

Show Posts in

Mon Vasir Tane : Somoresh Bosu ( সমরেশ বসু : মন ভাসির টানে )

মন ভাসির টানে : সমরেশ বসু যে-থাকার নাম বাঁশবেঁড়ে, তারই পোশাকি নাম বংশবাটি। জায়গার নাম করলেই লোকে আগে রাজবাড়ি আর মন্দিরের কথা ভাবে। আসলে, বাঁশবেঁড়ের চটকল পেরিয়ে সেই ত্রিবেনীর হাতায়। যেখান থেকে বাস আর এগোয় না, পেছোয়। হালের হালচাল চেহারা পথঘাট কেমন দেখতে হয়েছে, জানিনা। অনেক দিনের সাধ, একদিন

Dekhi Nai Fire : Somoresh Bosu ( সমরেশ বসু : দেখি নাই ফিরে )

দেখি নাই ফিরে : সমরেশ বসু ১৯৩৮ খ্রিষ্টাব্দ। গ্রীষ্মের এক অপরান্হবেলা। রাঢের শুকনো দুরন্ত দীর্ঘ  গ্রীষ্মের অপরান্হবেলা, এ অঞ্চলের লাল ধুলা-মাটি-কাঁকরের সঙ্গে, পড়ন্ত রৌদ্রও যেন রক্তে লাল। উত্তাপের খরতা দুপুরের তুলনায় কম। কিন্তু খুব একটা কম না।তবে দুপুরের আগুনের হলকায় যে ঝড়ো বাতাস বহে, এখন তা নেই। দুপুর গড়িয়ে

Dosh Digonto : Somoresh Bosu ( সমরেশ বসু : দশ দিগন্ত )

দশ দিগন্ত : সমরেশ বসু সূচীপত্র :                                                                  ১. রূপায়ন ————————————————৯ ২. গন্তব্য ————————————————–৯৩ ৩. বিষের স্বাদ ——————————————–১৮১

Shambo : Somoresh Bosu ( সমরেশ বসু : শাম্ব )

শাম্ব : সমরেশ বসু  মরিতে চাহি না আমি সুন্দর ভুবনে, কথাটা আজ অন্য একটা কথার খেই ধরিয়ে দিল। ধরিয়ে দেওয়া খেই কথাটা অবিশ্যি বিপরীত। না-তে আছে হ্যাঁ। ভ্রমিতে চাহি আমি সুন্দর ভুবনে। অনেকবার শোনা, আর অনেকবার বলা সেই কলিটাই তাই ফিরে আসে বারে বারে, মন চল যাই ভ্রমনে। কিন্তু

Shantipriyo : Somoresh Bosu ( সমরেশ বসু : শান্তিপ্রিয় )

শান্তিপ্রিয় : সমরেশ বসু লোকটা পা-দানির ওপরে, দরজা আগলে দাঁড়িয়ে ছিল।বিরক্তিকর। অপেক্ষমান বাস, দাঁড়িয়ে আছে, কত লোক উঠবে। এভাবে দরজা আগলে দাঁড়িয়ে থাকলে হয় না।আমি শান্তিপ্রিয় লোক, পিসলাভিং যাকে বলে। অকারণ ঝগড়া-বিবাদ করার ইচ্ছা আমার নেই। তা ছাড়া রাত্রি ন’টা বাজে। বাস যে পাওয়া গিয়েছে এটাই যথেষ্ট।অনেকদিন তো এসে

Shei Garir Khoje : Somoresh Bosu ( সমরেশ বসু : সেই গাড়ির খোঁজে )

সেই গাড়ির খোঁজে : সমরেশ বসু উপন্যাসের থেকেও জীবন নাকি বেশি বৈচিত্র্যময়। কিন্তু কখনো কখনো জীবনও হয়ে ওঠে অবিকল উপন্যাস। যেমন হলো সেদিন। স্কুলের কয়েকটি ছাত্র ব্যাঙ্ক ডাকাতদের গাড়ির নম্বর টুকে রেখছিল, সেই সুত্র থেকে পুলিশ ধরে ফেলল ডাকাতদলের পান্ডাদের।DownloadDownload Allbanglaboi

Ganga : Somoresh Bosu ( সমরেশ বসু : গঙ্গা )

গঙ্গা : সমরেশ বসু আগাম দলের তিনটি নৌকা ভাটার টানে তরতর করে নেমে এল, পুবের কেস্তপুরের খাল-গেট পেরিয়ে, নানা বিলের পাশ কাটিয়ে। তিনটি কাছারী নৌকা। এল পূব থেকে। খাড়া পূব থেকে নয়। পূব-দক্ষিণ থেকে। দুটি এল পুরোখোঁড়গাছি থেকে। আর-একটি ধলতিতা গাঁয়ের।DownloadDownload Allbanglaboi

Cholo Mon Rupnogore : Somoresh Bosu ( সমরেশ বসু : চল মন রুপনগরে )

চল মন রুপনগরে : সমরেশ বসু খোরাকির বরাদ্দ বড় কম। যতোটা চাই, ততোটা জোটে না। আর, এ এমন এক খোরাক, অঢৈল দিয়েও কেউ ভরিয়ে দিতে পারবে, সে-কথা কেউ কবুল করতে চাইবে না। বেফাঁস বলে বিপদে পড়ে যাবে। এ বরাদ্দ ঝোলায় ভরে দেবার না। তা, হলে ঝুলি পূর্ণ হলেই, তুষ্টি।

Bikele Vorer Phul : Somoresh Bosu ( সমরেশ বসু : বিকেলে ভোরের ফুল )

বিকেলে ভোরের ফুল : সমরেশ বসু সময়টাকে এখনো পুজাবকাশ বলা যায়। দিন তিনেক আগে কালিপূজা হয়ে গিয়েছে। আকাশে এখনো শরতকালের ছেঁড়া মেঘের টুকরো থাকলেও, সন্ধের দিকে একটু যেন ঠান্ডা ঠান্ডা ভাব। ঠান্ডা ভাব থাকলেও, একটু হাঁটাহাঁটি করলে, কিছুক্ষণ বন্ধ ঘরে থাকলে, গরম লাগে। বোধই এ সময়টাকে দো-আঁসলা বলে।DownloadDownload Allbanglaboi